26.4 C
Agartala
Monday, July 15, 2024
- Advertisemet -spot_img

কলেজ কতৃপক্ষের উদাসীনতায় রক্তাক্ত এক কলেজ পড়ুয়া ছাএি

শ্যামলী ত্রিপুরা প্রতিনিধি,পানিসাগর, ২৪জুন || কলেজ কতৃপক্ষের উদাসীনতায় রক্তাক্ত এক কলেজ পড়ুয়া ছাএি।ঘটনাটি ঘটে উওর জেলার পানিসাগর সরকারি ডিগ্রি কলেজে।ঘটনার বিবরণে জানা যায় যে,পানিসাগর সরকারি ডিগ্রি কলেজ টি বিগত এক বৎসর পুর্বে অস্থায়ী ভাবে পথ চলা শুরুকরে রৌয়া স্কুলের পুরাতন দ্বিতল পাকা ভবনে।কলেজটির জন্মলগ্ন থেকেই নৈশ প্রহরী থাকা সত্বেও রাএি বেলায় নানান ধরনের অসামাজিক কাজ কর্মের আড্ডা খানায় পরিনত হয় বলে অভিযোগ এলাকাবাসিদের।স্থানীয় এলাকার কিছু বকাটে লম্পটদের দৌরাত্ম্যে কলেজ বিল্ডিং এর মূল্যবান আসবাব পএ দিনের পর দিন ধ্বংসের পথে।বিল্ডিং টির জানালার কাচ থেকে শুরু করে দরজা ভেঙে কলেজের ভিতরে প্রবেশ করে মূল্যবান সামগ্রী হাতিয়ে নেওয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ।বকাটে যুবকদের তান্ডবে জানালার ভেঙে পড়া কাচে রক্তাক্ত হয় সেকেন্ড সেমিস্টারে পড়ুয়া অর্পনা নাথ নামের এক কলেজ ছাএি।ঘটনার পর পরই আহত কলেজ ছাএি কে তড়িঘড়ি নিয়ে আসা হয় পানিসাগর মহকুমা হাসপাতালে।হাসপাতালে চিকিৎসার পর আহত ছাএিটিকে পাটিয়ে দেওয়া হয় বিলথৈ স্থিত নিজ বাড়িতে।জানা গেছে কলেজ চত্বরে কাচ ভাঙ্গা সহ বিভিন্ন ধরনের বোতল ভাঙা সহ অন্যান্য আপওিকর সামগ্রি ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকায় প্রতিনিয়ত ছাএ ছাএিরা ছোট খাটো দূর্ঘটনার কবলে পতিত হচ্ছে।কলেজ পড়ুয়া ছাএ ছাএিরা অভিযোগ করো জানায় এই ধরনের বিষয়ে কলেজ কতৃপক্ষকে আগাম জানানো সত্বেও কলেজ কতৃপক্ষ কোন ধরনের ব্যাবস্থা গ্রহন করেনি।যদিও আজকের ঘটনার পর পরই কলেজের অধ্যক্ষ সৌভিক বাগচি তড়িঘড়ি বিষয় টি নিয়ে অভিযোগ জানায় পানিসাগর পুলিশে।বকাটে লম্পটদের বার বারন্তে প্রকাশ্য দিবালোকে কিংবা রাতের অন্ধকারে কলেজের মূল্যবান সামগ্রী ধ্বংস হতে বসলেও কলেজ কতৃপক্ষের কোন হেল দোল নেই।এলাকাবাসীরা অভিযোগ করেন কলেজটিতে নৈশ প্রহরী থাকা সত্বেও কি করে রাতের অন্ধকারে কলেজের মূল্যবান সামগ্রী ধ্বংস হচ্ছে।এতে দায়ি একমাএ কলেজ কতৃপক্ষ।এলাকাবাসী সহ কলেজ পড়ুয়া ছাএ ছাএিদের দাবি কলেজ কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপে অভিলম্বেই যেন কলেজটিতে নিরাপওা জনিত পরিস্থিতি স্থিতিশীল হয়।নয়তুবা মহকুমা বাসির চীর আকাঙ্খিত স্বপ্নের ডিগ্রি কলেজের ঐতিহ্য তলানিতে গিয়ে ঠেকবে।

Related Articles

যোগাযোগ রেখো

82,829ভক্তমত
834অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
1,320গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ