21 C
Agartala
Friday, February 23, 2024
- Advertisemet -spot_img

৫০ বছর পর আমেরিকার চন্দ্রাভিযান,উৎক্ষেপণের পরেই ধরা পড়ল বড়সড় ত্রুটি

বহু বছর পরে চাঁদে মহাকাশযান পাঠানোর প্রায় সবরকম বন্দোবস্ত করে ফেলেছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কিন্ত পরে দেখা গেল সেই পেরেগ্রিন মহাকাশযানটি ত্রুটিপূর্ণ। এই মহাকাশযানটি মাউন্ট এভারেস্টের টুকরো, মানব দেহাবশেষ নিয়ে চাঁদের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিয়েছিল। কিন্তু পেরেগ্রিন মহাকাশযানের প্রপেলান্টে বড়সড় সমস্যা দেখা যায়। যে সংস্থা এই মহাকাশযান তৈরি করেছে, সেই অ্যাস্ট্রোবোটিক টেকনোলজি বিষয়টি নিশ্চিত করে। ৫০ বছরের মধ্যে এটাই চাঁদে আমেরিকার পাঠানো প্রথম ল্যান্ডার হওয়ার কথা ছিল। সোমবার সকালে ফ্লোরিডা থেকে এই মহাকাশযান উৎক্ষেপণ করা হয়। কিন্তু উৎক্ষেপণের ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ে বিপদের সম্মুখীন হয় মহাকাশযানটি।বহু বছর পরে চাঁদে মহাকাশযান পাঠানোর প্রায় সবরকম বন্দোবস্ত করে ফেলেছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কিন্ত পরে দেখা গেল সেই পেরেগ্রিন মহাকাশযানটি ত্রুটিপূর্ণ। এই মহাকাশযানটি মাউন্ট এভারেস্টের টুকরো, মানব দেহাবশেষ নিয়ে চাঁদের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিয়েছিল। কিন্তু পেরেগ্রিন মহাকাশযানের প্রপেলান্টে বড়সড় সমস্যা দেখা যায়। যে সংস্থা এই মহাকাশযান তৈরি করেছে, সেই অ্যাস্ট্রোবোটিক টেকনোলজি বিষয়টি নিশ্চিত করে। ৫০ বছরের মধ্যে এটাই চাঁদে আমেরিকার পাঠানো প্রথম ল্যান্ডার হওয়ার কথা ছিল। সোমবার সকালে ফ্লোরিডা থেকে এই মহাকাশযান উৎক্ষেপণ করা হয়। কিন্তু উৎক্ষেপণের ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ে বিপদের সম্মুখীন হয় মহাকাশযানটি।মহাকাশযানের উৎক্ষেপণের মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরে অ্যাস্ট্রোবোটিক ঘোষণা করে যে, মিশনটি বিপদে পড়েছে। সংস্থাটি জানিয়েছে, ল্যান্ডারটি তার বুস্টার থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার পরেই সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিল, যা সম্ভবত জ্বালানি ট্যাঙ্কের ব্যর্থতা ছিল। মহাকাশযানটিতে ত্রুটি থাকার ফলে তার ব্যাটারি চার্জ করার জন্য এটিকে সূর্যের দিকে পরিচালিত করা যায়নি। কোম্পানির পরিকল্পনা ছিল, ২৩
ফেব্রুয়ারি চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করবে পেরেগ্রিন মহাকাশযান। বর্তমানে এটি চাঁদের দিকে ঘুরছে। গত বছর রাশিয়া চাঁদে একটি ল্যান্ডার অবতরণ করেছিল। ৫০ বছর পর রাশিয়াও চাঁদে তাদের মিশন চালু করতে সক্ষম হয়েছে। যদিও তাদের লুনা ২৫ সফল ভাবে অবতরণ কতে পারেনি। অ্যাস্ট্রোবোটিকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, পেরেগ্রিনের প্রথম ছবিতে একটি ত্রুটিপূর্ণ মাল্টি-লেয়ার ইনসুলেশন (MLI) দেখানো হয়েছে। তারা জানিয়েছে, সেই কারণেই প্রপেলান্টে ত্রুটি দেখা যায়। সংস্থাটি আরও বলছে, প্রথমে মহাকাশযানের সঙ্গে যোগাযোগ সম্পূর্ণ ভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। লক্ষ্য করার মতো বিষয়টি হল, পেরেগ্রিনের ব্যাটারিতে সম্পূর্ণ চার্জ ছিল। সংস্থাটি বলছে, “পেরেগ্রিনের বিদ্যমান শক্তি যতটা সম্ভব মহাকাশযান অপারেশন করতে ব্যবহার করা হচ্ছে।” বিজ্ঞানীরা সূর্যের দিকে পেরেগ্রিনের সৌর প্যানেলগুলিকে নির্দেশ করার জন্য আর একটি পদ্ধতি ব্যবহার করেছিলেন।এ নিয়ে নাসা টুইট করে লিখছে, “বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয়েছে মহাকাশযানটি। প্রপেলান্টে সমস্যা দেখা যাওয়ার ফলে আমরা তার কারণ খুঁজতে এবং মূল্যায়ন করতে অ্যাস্ট্রোবোটিংকের সঙ্গে কাজ করছি। জ্বালানি লিক হওয়ার কারণে পেরেগ্রিনের ল্যান্ডার নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার থ্রাস্টারগুলিকে সূক্ষ্ম করতে হয়েছিল।”

Related Articles

যোগাযোগ রেখো

82,829ভক্তমত
834অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
1,320গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ