17.1 C
Agartala
Saturday, February 24, 2024
- Advertisemet -spot_img

দুর্নীতির স্পষ্ট ছবি! বৃষ্টির জলে ধুঁয়ে গেল সব

তেলিয়ামুড়া প্রতিনিধি:

ব্রক্ষ্মছড়া কৃষি ফার্মে পাকা ড্রেন নির্মাণে দুর্নীতির অভিযোগ কতটা যে সত্য তা সংবাদ সম্প্রচারিত হওয়ার ২৪ ঘন্টা বাদেই পরিষ্কার। শুক্রবার রাতের ছিটে ফোঁটা বৃষ্টিতেই ড্রেন নির্মাণে দুর্নীতির ঘোটালা প্রকট হয়ে উঠলো। সামান্য ছিটে ফোঁটা বৃষ্টিতেই ড্রেনের উপর সিমেন্টের প্রলেপ গুলো জলের সাথে ধুয়ে মুছে গেল।এ ব্যাপারে এলাকাবাসীরা নির্মাণ কাজে দুর্নীতির অভিযোগ তোলে জানায়,,, কৃষি ফার্মের ভেতর নির্মীয়মান ড্রেনে বালির পরিবর্তে লাল মাটি সহ অতি নিম্নমানের ইট ব্যাবহার করা হচ্ছে। তাছাড়া সিমেন্টের ব্যাবহার কম করে ড্রেন নির্মাণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। তাছাড়া এলাকাবাসীদের আরো অভিযোগ,, এই নির্মাণ কাজের ইমপ্লিমেন্টিং অফিসার তথা ইঞ্জিনিয়ার মৃণাল দেবের সক্রিয় সহযোগিতাতেই এই দুর্নীতিগ্রস্ত কাজ হচ্ছে। এলাকাবাসীরা জানান,,, হয়তো’বা ইমপ্লিমেন্টিং অফিসার তথা ইঞ্জিনিয়ার মৃণাল দেবের সঙ্গে ঠিকেদারদের গোপন সমঝোতা হয়েছে। তাই উনি সবকিছু জেনেও হয়তোবা না জানার ভান করছেন।
এই কাজের ঠিকেদার দীপক বিশ্বাস অত্যন্ত নিম্নমানের এই ড্রেন নির্মাণের কাজটিকে ঠিকঠাক ভাবে হচ্ছে বলে ক্যামেরার সামনে অপকটে স্বীকার করেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান,, এই কাজের ইমপ্লান্টিং অফিসার তথা ইঞ্জিনিয়ার মৃণাল দেবের পক্ষ থেকে লিখিত বা মৌখিকভাবে ড্রেন ভেঙ্গে পুনরায় সংস্কার করার কথা জানানো হয়নি ঠিকাদারদের।
অন্যদিকে এলাকাবাসীরা অভিযোগ করে জানান,,, ইঞ্জিনিয়ারের পক্ষ থেকে এই কাজের ঠিকাদারদের মৌখিকভাবে ড্রেন ভেঙ্গে পুনরায় ড্রেন তৈরি করার নির্দেশিকা জারি করা হলেও নির্দেশিকাকে শুকনো কলা পাতা বানিয়ে অবাধে চলছে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যাবহার করে ড্রেন নির্মাণের কাজ। তবে এই নিম্নমানের ড্রেন নির্মাণের কাজটিকে উন্নত মানের কাজ বলে আখ্যায়িত করে দিব্যি কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন ঠিকাদার বাবুরা।
এখন দেখার বিষয়, দুর্নীতির চাদরে মোড়া এই ড্রেন নির্মাণের কাজের বিরুদ্ধে কি ধরনের ব্যাবস্থা গ্রহণ করে সংশ্লিষ্ট দপ্তর। নাকি দুর্নীতিগ্রস্ত নিম্নমানের সামগ্রী ব্যাবহার করে তৈরিকৃত ড্রেনটির নির্মাণ কাজ এ হালেই চলতে থাকে।

Related Articles

যোগাযোগ রেখো

82,829ভক্তমত
834অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
1,320গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ