29 C
Agartala
Monday, April 15, 2024
- Advertisemet -spot_img

ত্রিপুরা থেকেই ট্রেনে সোজা বাংলাদেশ, নতুন বছরেই যাত্রা শুরু

এবার ত্রিপুরার সঙ্গেও রেলপথে যুক্ত হতে চলেছে বাংলাদেশ। বহুকাঙ্খিত আগরতলা-আখাউড়া রেলপথ শুরু হতে আর মাত্র কয়েক মাসের অপেক্ষা। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে আন্তর্জাতিক বাস ও ট্রেন পরিষেবা ইতিমধ্যেই চালু রয়েছে। দুই দেশের মধ্যে মৈত্রী এক্সপ্রেস ঢাকা-কলকাতা রুটে এবং বন্ধন এক্সপ্রেস খুলনা-কলকাতা রুটে চলাচল করে। এছাড়া রেলপথে বাংলাদেশ ও উত্তরবঙ্গকে যুক্ত করেছে মিতালী এক্সপ্রেস। এবার ত্রিপুরার সঙ্গেও রেলপথে যুক্ত হতে চলেছে বাংলাদেশ। বহুকাঙ্খিত আগরতলা-আখাউড়া রেলপথ শুরু হতে আর মাত্র কয়েক মাসের অপেক্ষা। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।২০২৩ সালের ৩০ জুন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া-আগরতলা রেলপথ নির্মাণকাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। সম্প্রতি আখাউড়া-আগরতলা রেলপথ পরিদর্শন শেষে তিনি এ কথা জানান। কাজের বর্তমান যে অবস্থা তাতে আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিলের মধ্যে কাজ শেষ করা সম্ভব হবে। জুনের মধ্যে ট্রেন চলাচল করবে। চাহিদা থাকলে মালবাহীর পাশাপাশি যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করবে এই পথ দিয়ে। ইতিমধ্যেই প্রয়োজনীয় রেল, স্লিপার, পাথর আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের রেলমন্ত্রী। এই রেলপথ চালু হলে আন্তঃদেশীয় যোগাযোগ আরো সমৃদ্ধ হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন নুরুল ইসলাম সুজন। বেশ কয়েকবছর আগেই আগরতলা ও ঢাকার বাস সার্ভিস পরিষেবা আখাউড়ার মধ্যে দিয়ে চালু হয়েছে। যাত্রীদের সময় ও খরচের কথা মাথায় রেখে এবার চালু হবে রেলপথ। এই পরিষেবা শুরু পলে সময় ও অর্থ দুইয়েরই সাশ্রয় হবে। প্রসঙ্গত, আখাউড়া-আগরতলা রেললাইন প্রকল্পটি ভারতীয় অনুদানের নির্মিত হচ্ছে। প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি এখনও পর্যন্ত ৬৭ শতাংশ। আগরতলা থেকে আখাউড়া পর্যন্ত বাংলাদেশ অংশের দৈর্ঘ্য ৬.৮ কিলোমিটার।

Related Articles

যোগাযোগ রেখো

82,829ভক্তমত
834অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
1,320গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ