28 C
Agartala
Wednesday, April 17, 2024
- Advertisemet -spot_img

নাবালিকা ছাত্রীর উপর অমানসিক নির্যাতন

শ্যমমলী ত্রিপুরা প্রতিনিধি,উদয়পুর ২৮ মার্চ||২০২২ সালে উদয়পুর দেওয়ালি মেলা দেখতে গিয়ে ছিল কাকড়াবন থানাধীন মুড়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা বাবুল দাশের ছোট মেয়ে।মেলা থেকে রাতে বাড়িতে ফিরে আসার সময় এলাকার মাংস বিক্রেতা বিকাশ মিয়ার সাথে দেখা নাবালিকা মেয়েটির।সেই দিন রাত্রে নাবালিকা ছাত্রীকে মাংস কাটার ছুরি দেখিয়ে ছাত্রীটির উপর শারীরিক লালসা মেটায়। এবং বলে যদি এ ঘটনা কাউকে জানালে পরিবারের সবাই কে মেরে ফেলা হবে।এই ভয়ে মেয়ে টি কাউকে কিছু জানায়নি।এর পর ও ছেলেটি বেশ কয়েকবার মেয়ে টির বাড়িতে গিয়ে মেয়ে টির উপর শারীরিক লালসা মেটায়।একটা সময় মেয়েটি গর্ভবতী হয়ে পড়লে এলাকার লোকজন ঘটনা জানতে পারে। এরমধ্যে মেয়ে টি তার মা- বাবা কে সব ঘটনা জানায়। এরমধ্যে বিকাশ মিয়ার পিসি ফুলবানু বিবি ও বিকাশ মিয়ার ছোট ভাই মেয়ে টি কে নিয়ে উদয়পুরে কোন এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গিয়ে নাবালিকা মেয়ে টির গর্ভপাত করানো হয় বলে ছাত্রী টি নিজেই বলেছে। পরবর্তী সময়ে এখবর পেয়ে হিন্দুত্ব বাহিনীর সংগঠনের কর্মীরা এ খবর পেয়ে ছুটে যায় নাবালিকা মেয়ে টির বাড়িতে। পরিবারের সবাই কে নিয়ে কাকড়াবন থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে বিকাশ মিয়া কে রাতেই গ্ৰেপ্তার করা হয়। কাকড়াবন থানার মামলার নম্বর ৪১/২০২৩. পুলিশ ৩৭৬/৩১৩/৫০৬/১০৯ আই পি সি এবং ছয় পসকও আইনে মামলা হাতে নিয়ে অন্যদের জালে তোলার কাজ শুরু করেছে। এদিকে নাবালিকা মেয়ে টি ও তার মা লাল ছনা বালা দাশ জানান তারা অত্যন্ত গরীব। তিনি একটি ইটভাটার দিন মজুরের কাজ করে সংসার চালান। স্বামী বাবুল দাশ অসুস্থ থাকায় কোন কাজ করতে পারে না।দিন এনে দিন খায়।ঘড় নেই। যাও একটা প্রধান মন্ত্রীর আবাস যোজনার ঘড় পেয়েছে সব টাকা না পাওয়ায় ঘড়টআও ঠিক মতো করতে পারছে না। ঘরের দরজা,জানালা নেই। ঘরে কোনরকমে তিনজন কোন মতে বসবাস করে জীবন যাপন করছে।এখন দেখার বিষয় পুলিশ আসামীদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়।অপর দিকে নাবালিকা মেয়ে টির পরিবার আসামী দের ফাসির দাবি তুলেছেন।এখন পরিবারের সবাই আইনের দিকে তাকিয়ে আছে।

Related Articles

যোগাযোগ রেখো

82,829ভক্তমত
834অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
1,320গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ