25.4 C
Agartala
Saturday, April 13, 2024
- Advertisemet -spot_img

আইনজীবীর গাড়িতে উদ্ধার লক্ষাধিক টাকার গাঁজা

শ্যামলী ত্রিপুরা প্রতিনিধি, কুমারঘাট ১৫ মে।। গাঁজা পাচার করতে নতুন কৌশল অবলম্বন করে ও শেষ রক্ষা হলো না, ধরা পড়তে হল পুলিশের কাছে। রবিবার রাতে কুমারঘাট ট্রাফিক ইউনিটের ইনচার্জ পঙ্কজ দেবনাথ এর কাছে একটি গোপন খবর আসে যে আগরতলা থেকে একটি বিলাস বহুল মারুতি গাড়ি করে আসামের উদ্দেশ্যে গাজা পাচার হবে সেই খবরের ভিত্তিতে ট্রাফিক ইউনিটের ইনচার্জ পঙ্কজ দেবনাথ সহ অন্যান্য ট্রাফিক পুলিশ কর্মীদের নিয়ে কুমারঘাট ৯১ মাই ল এলাকায় জাতীয় সড়কে ওৎ পেতে বসে থাকে। পরে রাতে আগরতলার দিক থেকে নম্বরবিহীন পেছনে ওর সামনে অ্যাডভোকেটের সিম্বল লাগানো এবং গাড়ির সামনে জাতীয় পতাকা লাগানো একটি গাড়ি আসতেই গাড়িটিকে কুমারঘাট ট্রাফিক ইউনিটের কর্মীরা দাঁড়ানোর জন্য বললে গাড়িটি সেখান থেকে ট্রাফিক সিগন্যাল ভেঙ্গে পালিয়ে যায়। পরে ট্রাফিক ইউনিটের ইনচার্জ পঙ্কজ দেবনাথ সাথে সাথে পেচারতল থানায় গাড়িটিকে আটক করার জন্য খবর পাঠায়। পরে পেচারতল থানার পুলিশ গাড়িটির পেছনে ধাওয়া করে পংছড়া এলাকায় গাড়িটিকে আটক করলেও গাড়িতে থাকা গাঁজা পাচারকারীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। খবর পেয়ে সেখানে ছুটে আসেন কুমারঘাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিক কমল দেববর্মা। মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সহ পেচারতল থানার ওসি সুমন আচার্য এবং সাব-ইন্সপেক্টর দুলাল চন্দ্র ভৌমিক সহ অন্যান্য পুলিশ কর্মীরা গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে 20 প্যাকেটে মোট ১৭৫ কেজি শুকনো গাজা উদ্ধার করে। পরে পুলিশ গাড়িটিকে পেচারতল থানায় নিয়ে যায়। এই ব্যাপারে পুলিশ একটি এনডিপিএস ধারায় মামলা হাতে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। সোমবার উদ্ধারকৃত গাজাগুলি ঊনকোটি জেলা ও দায়রা জজের আদালতে পাঠানো হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে উদ্ধারকৃত শুকনো গাজা গুলির বাজার মূল্য আনুমানিক ২৭ লক্ষ টাকা। তবে এই যাত্রায় গাঁজা পাচারকারীরা গাড়িতে এডভোকেটের স্টিকার সহ গাড়ির সামনে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে একেবারে ভিআইপি গাড়ির মতো সাজিয়ে গাজা বোঝাই করে পাচার করছিল যাতে করে গাড়িটিকে দেখে পুলিশের কোন ধরনের সন্দেহ না হয় অবশেষে গাঁজা পাচারকারীদের এই কৌশলও কাজে লাগলো না গাড়িসহ শুকনো গাজা আটক হল পুলিশের কাছে।

Related Articles

যোগাযোগ রেখো

82,829ভক্তমত
834অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
1,320গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ