25 C
Agartala
Tuesday, February 27, 2024
- Advertisemet -spot_img

বরদা ভাই কর্তৃক ধর্ষণের শিকার নাবালিকা শিশু।

নারী সংক্রান্ত অপরাধ যেন পিছুই ছাড়ছেনা সমগ্র উওর জেলা জুড়ে।নারী ঘটিত অপরাধের মাএার তান্ডবে স্বামী পরিত্যাক্তা মহিলা থেকে শুরু করে বিধবা মহলাদের পাশাপাশি বিবাহিতা মহিলাদের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে চলেছে নাবালিকা শিশুকন্যারাও।এমনই একটি ন্যাক্কার জনক নাবালিকা শিশু কন্যার শ্লীলতা হানির ঘটনা ঘটে উওর জেলার পানিসাগর মহকুমার অন্তর্গত জ্বলাবাসা গ্রাম পঞ্চায়েতের সন্নিহিত এলাকায়।ঘটনার বিবরণে যানা যায় যে,গতকাল রাএি আনুমানিক ছয়টা নাগাদ ঐ এলাকার জৈনিক ব্যাক্তির বাড়িতে পারিবারিক আত্মীয়তার সুএে বেড়াতে আসে একই মহকুমার পদ্মবিল নতুন বাজার সংলগ্ন পাঁচ নং ওয়ার্ডে বাসিন্দা পেষায় দিনমজুর মৃত ক্ষিরোধ দাস এর গুনধর পয়ত্রিশ বর্ষিয়া পুএ বিরেন্দ্র দাস ওরফে বিরই।বাড়ির কর্তা সহ আশপাশ এলাকার কতিপয় জনাকয়েক লোজ জন উঠানে বসে গল্পের আসর চলাকালীন সময়ে নাবালিকা কন্যাটির মায়ের অনুপস্থিতির সুযোগ বুঝে ঘরে থাকা নাবালিকা কন্যাটিকে শরিরের আপওিকর স্থানে হাত দেওয়া সহ ঠোটে এবং বুকে কামড় মারা সহ গোপনাঙ্গে আঙুল ডুকিয়ে শ্লীলতাহানী করে।এতে শিশুকন্যাটি আঘাত পেয়ে চিৎকার করলে পাশ্ববর্তী রান্নাঘর থেকে মা ছুটে আসে এবং সবকিছু শুনতে পেয়ে স্বামীকে বিষয়টি বলতে গেলে সুযোগ বুঝে অভিযুক্ত লম্পট পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।তড়ি ঘরি শিশু কন্যাটিকে প্রথমে জ্বলাবাসা প্রাথমিক স্বাস্হ্য কেন্দ্র এবং পরবর্তীতে পানিসাগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ধর্মনগর জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাবার পরামর্শ প্রদান করা হয়।তবে বিষয়টি পানিসাগর হাসপাতাল সুএে পানিসাগর পুলিশে খবর পাটালে অসহায় পরিবারটি পানিসাগর পুলিশের স্মরনাপন্ন হয়।ঘটনার খবর পেয়ে রাএিতেই থানাতে ছুটে যায় মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সৌভিক দে।ঘটনার বিস্তারিত বিবরন শুনে আইনি প্রক্রিয়া মোতাবেক একটি অভিযোগের ভিওিতে তদন্ত কার্য অব্যাহত রাখে।রাএি অনেকটা হওয়াতে আজ বারোই ডিসেম্বর সকালে নির্যাতিতা পরিবারটির অভিযোগের ভিওিতে পকসো ধারায় মামলা নিয়ে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছে।এই মর্মে পানিসাগর থানা কেইস নম্বর ০৮১/১২/১২/২২ আন্ডার সেকশন ৩৭৬ এ,বি,মুলে ভারতীয় দন্ডবিধি এবং পকসো ধারায় একটি মামলা রেজিস্ট্রি করে।পানিসাগর থানা সুএে জানানো হয় মামলা গ্রহনের পর থেকে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে তল্লাশি অভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে।নাবালিকা শিশু কন্যা শ্লীলতাহানির ঘটনায় গোটা মহকুমা জোরে চাঞ্চল্য বিরাজ করছে।

Related Articles

যোগাযোগ রেখো

82,829ভক্তমত
834অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
1,320গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ